বগুড়ায় করোনা ও উপসর্গে ১৯ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৪৪

বগুড়ায় মৃত্যুর মিছিল থামছেইনা। বগুড়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও ১৪ জন। সোমবার সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় তাদের মৃত্যু হয়। করোনায় মারা যাওয়া ৫জনের মধ্যে ২জন বগুড়ার বাকি ৩ জন অন্য জেলার। মারা যাওয়া ব্যক্তিরা হলেন- নওগাঁর ইসমাইল(৬০) ও জাহানারা(৬০), জয়পুরহাটের রাবেয়া(৬০), বগুড়ার শাজাহানপুরে রনজিদা বেগম(৪৮) এবং সদরের রুমানা বেগম(৩৮)।

এদের মধ্যে ইসমাইল, জাহানারা ও রাবেয়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ(শজিমেক) হাসপাতালে, রনজিদা সরকারি মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে এবং  রুমানা বেগম টিএমএসএস হাসপাতালে  চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

মরণঘাতী করোনা ভাইরাসে জেলায় নতুন করে আরও ১৪৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদিকে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতাল, শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল ও টিএমএসএস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ করোনা উপসর্গ নিয়ে এই তিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১৪জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছেন।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় জেলায় আরও ৬৫০টি নমুনা পরীক্ষায় ১৪৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের হার ২২ দশমিক ১৫ শতাংশ। এদের মধ্যে সদরের ৭০ জন, শেরপুরের ২০জন, আদমদীঘিতে ১০ জন, সারিয়াকান্দিতে ১০ জন, গাবতলীতে ৮ জন, শাজাহানপুরে ৬ জন, দুপচাঁচিয়ায় ৫ জন, কাহালুতে ৪জন, ধুনটে ৪ জন, সোনাতলায় ৩ জন, শিবগঞ্জে ২ জন এবং নন্দীগ্রামে ২ জন । এছাড়া একই সময়ে সুস্থ হয়েছেন আরও ১৭৩ জন।

শনিবার বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমন মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ২৮২টি নমুনা পরীক্ষায় ২৭ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।একই কলেজের জিন এক্সপার্ট মেশিনে ১১ নমুনায় ৬জনের এবং এন্টিজেন পরীক্ষায় ৩০৩ জনের মধ্যে ৮৯ জন করোনায় শনাক্ত হয়েছেন।  এছাড়া বেসরকারি টিএমএসএস মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ৫৪ নমুনায় ২২ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

ডা. তুহিন জানান, জেলায় এ পর্যন্ত মোট ১৬,১৭৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৩,৮০৭ জন এবং ৪৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া ১,৮৯১জন চিকিৎসাধীন।